প্রেস্টিজ পাংচার


আমার বয়স তখন ৬-৭ বছর। আমার এক ফুফাতো ভাই আমার ইয়ার দোস্ত। ফুফাতো ভাই আমার একবছরের বড়। আমরা তখন লুকিয়ে পাশের বাড়ির গোসলখানায় বড় আপুদের ন্যাংটো দেখতাম। পরে আমাদের কাজিনদের একটা গ্রুপ ছিলো। সেখানে কার ল্যাংটা দেখা হলো, কোনটা কেমন এসব নিয়ে রসালো আলোচনা হতো। আমি আবার এইসব দেখায় এক্সপার্ট ছিলাম। তাই ঐ গ্রুপে আমার প্রেস্টিজ ছিলো অন্যরকম। সেই প্রেস্টিজ কীভাবে পাংচার হয়ে গেলো সেই গল্প বলি। Continue reading

জোকস (১৮+)


যে পুরো আইস্ক্রীম মুখে পুরে চুষছিলো সেই বিবাহিত।

কিন্ডারগার্টেনে তরুনী টিচার ক্লাসে খেয়াল করলেন যে এক ছাত্র বেশ অমনোযোগী। তাকে দাড় করিয়ে জিজ্ঞেস করলেন, “ বলো একটি ডালে তিনটি পাখি বসে আছে। তুমি একটি বন্দুক দিয়ে একটি পাখিকে গুলি করলে সেখানে আর কয়টি পাখি থাকবে?”
ছাত্রঃ একটিও না।
ম্যাডামঃ কেন?
ছাত্রঃ ম্যাডাম আমি যদি বন্দুক দিয়ে গুলি করি তাহলে গুলির শব্দে সবগুলো পাখি উড়ে যাবে।
ম্যাডামঃ তুমি যেভাবে চিন্তা করেছো তা আমার পছন্দ হয়েছে। কিন্তু সঠিক উত্তর হবে আর দুইটি পাখি থাকবে। Continue reading

১৮ + রম্যের অফুরন্ত সম্ভার


########################################################
এক ভদ্রমহিলার তিন-তিনটি অবিবাহিতা মেয়ে।
অনেকদিন চেষ্টা করেও কিছু না হওয়ার পরে হঠাৎ করেই তিন মেয়ের খুব অল্প সময়ের মধ্যে বিয়ের ঠিক হয়ে গেলো।ভদ্রমহিলা মেয়েদের দাম্পত্যজীবন (?) নিয়ে চিন্তায় পড়ে গেলেন।তো তিনি মেয়েদের বললেন যে প্রত্যেকে যেনো হানিমুন থেকে অল্প কথায় কিছু লিখে তাকে পোস্টকার্ড পাঠায়।যাতে তিনি বুঝতে পারেন যে মেয়েদের হানিমুন কেমন চলছে।
বিয়ের দু’দিন পরে প্রথম মেয়ে হাওয়াই থেকে পোস্টকার্ড পাঠাল। তাতে শুধু লেখা – “Nescafe”!!!!
প্রথমে বেশ অবাক হলেও,কিছুক্ষন বাদে তিনি কিচেনে গিয়ে Nescafe – এর জার বের করলেন।দেখলেন তার গায়ে লেখা – “Good till the last drop”….
তিনি একটু লজ্জা পেলেও,মেয়ের খবরে আনন্দ পেলেন। Continue reading